আন্তর্জাতিক

নিউইয়র্ক ছাড়ছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট:ডোনাল্ড ট্রাম্প

বার্তা সম্পাদক : মেহেদী হাসান

শেয়ার করুনঃ

নিউইয়র্ক ছেড়ে ফ্লোরিডায় স্থায়ীভাবে বসবাসের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ফ্লোরিডা গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গরাজ্য হওয়ায় সেখানকার ভোট টানতেই সেখানে বসবাসের সিদ্ধান্ত নিলেন তিনি।

বিশেষ করে আগামী ৩ নভেম্বরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জিততে হলে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ফ্লোরিডার ২৯টি ইলেকটোরাল কলেজ ভোট কবজা করতে হবে। গত ১০০ বছরে কোনো রিপাবলিকান প্রার্থীর পক্ষে এই ফ্লোরিডায় জয়লাভ ছাড়া হোয়াইট হাউস দখল করা সম্ভব হয়নি। ট্রাম্পের পক্ষেও সম্ভব হবে না।

২০১৬ সালে তিনি ১ পয়েন্টের বেশি ব্যবধানে হিলারি ক্লিনটনকে হারিয়েছিলেন, ফলে সংগত কারণেই ডোনাল্ড ট্রাম্প এই অঙ্গরাজ্য ধরে রাখার ব্যাপারে আশাবাদী।

এদিকে, ট্রাম্প নিউইয়র্ক ছাড়ার খবরে বেশ খুশি হয়েছেন নিউইয়র্কের ডেমোক্র্যাট নেতারা।বিষয়টি ট্রাম্পেরও জানা। তিনি জানেন, নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্যে তার জনপ্রিয়তা নেই বললেই চলে।২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ফলাফল সে সমীকরণই জানাচ্ছে। সেই নির্বাচনে নিউইয়র্ক রাজ্যের প্রায় ৮০ শতাংশ ভোট পেয়েছিলেন তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী হিলারি ক্লিনটন।

জনপ্রিয়তা না থাকা সত্ত্বেও নিউইয়র্ক ও তার অধিবাসীদের প্রতি আলাদা টান অনুভব করেন বলে জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

এ নিয়ে বৃহস্পতিবার টুইটে ট্রাম্প বলেন, ‘নিউইয়র্ক ও তার অধিবাসীদের প্রতি অন্যরকম টান আছে আমার। এ অনুভূতি কখনোই কমবে না। এই রাজ্যে প্রতিবছর কয়েক মিলিয়ন ডলার কর দিই আমি। তবুও এ রাজ্যের অনেকে আমাকে পছন্দ করেন না।

একটু ক্ষোভ প্রকাশ করে তিনি লিখেছেন, ‘দুর্ভাগ্যবশত এ অঙ্গরাজ্যের ও শহরের রাজনৈতিক নেতারা সবসময় আমার সঙ্গে দুর্ব্যবহার করে এসেছেন। কেউ কেউ খুবই খারাপ আচরণ করেছেন। এরপরও নিউইয়র্ক ছেড়ে যেতে আমার কষ্ট হবে।পাম বিচের কোথায় হচ্ছে মার্কিন প্রেসিডেন্টের বাসভবন?

নিউইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, এখন থেকে পাম বিচে যেখানে থাকবেন ট্রাম্প, তিনি সেই বাসভবনকে আগে থেকেই ‘উইন্টার হোয়াইট হাউস নামে ডাকেন।

আওয়ার বাংলাদেশ নিউস ২৪


শেয়ার করুনঃ
Show More

সম্পর্কিত খবর

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Back to top button